আজ: [english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ
আইন ও বিচার, প্রধান সংবাদ মানবতাবিরোধী অপরাধ: আজিজ মিয়াসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে রায় যে কোনো দিন

মানবতাবিরোধী অপরাধ: আজিজ মিয়াসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে রায় যে কোনো দিন


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: 10/23/2017 , 6:15 am | বিভাগ: আইন ও বিচার,প্রধান সংবাদ



মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামায়াত নেতা ও গাইবান্ধার সাবেক সংসদ সদস্য আবু সালেহ মুহাম্মদ আব্দুল আজিজ মিয়াসহ ছয় আসামির বিরুদ্ধে পুনঃরায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে মামলাটি যে কোনো দিন রায়ের (সিএভি) জন্য রাখা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান বিচারপতি মো: শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন ৩ সদস্যের বিচারিক প্যানেল আজ সোমবার এ আদেশ দেয়।

এ মামলার প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বাসস’কে এ কথা জানান। আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক সর্বোচ্চ সাজার রায় হবে বলে আশা প্রকাশ করেন এ প্রসিকিউটর।

তিনি বলেন, এর আগে গত ৯ মে এই মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে ট্রাইব্যুনালের তৎকালীন চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বাধীন বিচারিক প্যানেল রায়ের জন্য মামলাটি অপেক্ষামাণ রেখেছিলেন। বিচারপতি আনোয়ারুল হক মৃত্যুবরণ করায় ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করে গত ১১ অক্টোবর প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। নবগঠিত ট্রাইব্যুনাল মামলাটি পুনরায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য দিন ধার্য করে আদেশ দেয়। সে অনুযায়ী পুনরায় যুক্তিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

এ মামলাটি ট্রাইব্যুনালের ২৯তম মামলা যা রায় ঘোষণার পর্যায়ে রয়েছে। এর আগে আরো ২৮ মামলায় রায় ঘোষণা করেছে ট্রাইব্যুনাল। মামলার আসামিদের মধ্যে রয়েছেন-জামায়াতের সাবেক এমপি আবু সালেহ মুহাম্মদ আব্দুল আজিজ মিয়া ওরফে ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয়জন। অন্যান্য আসামিরা হলেন- মো: রুহুল আমিন ওরফে মঞ্জু (৬১), মো: আব্দুল লতিফ (৬১), আবু মুসলিম মোহাম্মদ আলী (৫৯), মো: নাজমুল হুদা (৬০) ও মো: আব্দুর রহিম মিঞা (৬২)। এ ছয়জনের মধ্যে মো: আব্দুল লতিফ কারাগারে আছে, বাকি পাঁচজন পলাতক রয়েছে।

আজিজসহ গাইবান্ধার ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করা হয়। একই বছরের ২৩ নভেম্বর প্রসিকিউশনের করা আবেদনের প্রেক্ষিতে ২৬ নভেম্বর ছয় আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে।

আব্দুল আজিজ মিয়া ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত চারদলীয় জোটে জামায়াত থেকে গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জ-১ আসনে সংসদ সদস্য ছিলেন। হত্যা, গণহত্যা, আটক, অপহরণ, নির্যাতন, গুম, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

Comments

comments

Close