আজ: ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং, শনিবার, ১ পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৯ রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী, বিকাল ৩:২৪
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, নারী ও শিশু, রংপুর বিভাগ ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধূ ও কিশোরী ধর্ষণের শিকার

ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধূ ও কিশোরী ধর্ষণের শিকার


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/০৬/২০১৭ , ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,নারী ও শিশু,রংপুর বিভাগ


Spread the love
Spread the love

 ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নে এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। রোববার রাতে ওই ইউনিয়নের খাগরাবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অন্য ঘটনায় জেলার পীরগঞ্জ উপজেলায় গত শুক্রবার রাতে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক কিশোরী।

সদর উপজেলার ঘটনায় পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার রাত ৮টার দিকে গৃহবধূর স্বামী বাড়ির পার্শ্বে ধামের গান শুনতে যায়। রাত ৮টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে স্থানীয় বাপ্পী ঘরে ঢুকে তার মুখ চেপে ধর্ষণ করে। এসময় গৃহবধূর চিৎকারে বাড়ির আশপাশের লোকজন ছুটে এলে বাপ্পী পালিয়ে যায়।

গৃহবধূর শ্বশুর অভিযোগ করে বলেন, এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে বাপ্পীসহ তার পরিবারের লোকজন আমাদের মারপিট করে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার এসআই খায়রুল আনাম বলেন, গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার বৈরচুনা ইউনিয়নের ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের ঘটনায় রেজাউল ও লুৎফরের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৪ জনের বিরুদ্ধে নির্যাতিতার চাচা পীরগঞ্জ থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত লুৎফরকে গ্রেফতার করেছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই কিশোরী জানায়, পীরগঞ্জের একটি খাবার হোটেলে দৈনিক হাজিরা ভিত্তিতে কাজ করে সে। শুক্রবার রাতে হোটেলের কাজ শেষে বের হলে অভিযুক্ত রেজাউল খবর দেয় তার বড় চাচা রিকশা চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়েছে। তাই তাকে যেতে হবে। রেজাউল এসময় তাকে অটোরিকশায় তুলে কিছুদূর নিয়ে গিয়ে একটি ফাঁকা রাস্তার পাশে রিকশা থেকে নামিয়ে নেয়। পরে রেজাউলের সঙ্গে লুৎফরসহ আরও ৪ জন সেখাতে তাকে ধর্ষণ করে। জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তারা পালিয়ে যায়।

ভোরে জ্ঞান ফিরলে পীরগঞ্জ থানায় গিয়ে সে ওসিকে বিষয়টি জানায়। পুলিশ পরে তাকে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেয়। রোববার রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ ঠাকুরগাঁও হাসপাতালে তাকে ভর্তি করে দেন।

ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার জানান, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Share

Comments

comments

Close