আজ: ২৪ জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, বৃহস্পতিবার, ১১ মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী, রাত ১২:০৭
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রধান সংবাদ পদ্মা সেতুর ৩৯ ও ৪০ নং পিলারের তৃতীয় ধাপের ঢালাই শেষ

পদ্মা সেতুর ৩৯ ও ৪০ নং পিলারের তৃতীয় ধাপের ঢালাই শেষ


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/১৯/২০১৭ , ১:৩৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রধান সংবাদ


Spread the love
Spread the love

পুরোদমে চলছে পদ্মা সেতু প্রকল্পের কাজ। ইতিমধ্যে ৩৯, ৪০ নং পিলারের তৃতীয় ধাপের ঢালাই শেষ হয়েছে। ৪২ নং পিলারের পাইল ক্যাপ ঢালাই শেষ হয়েছে। পদ্মা সেতু প্রকল্পে যুক্ত হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি শক্তির অধিকারী ৩ হাজার ৫০০ কিলোজুল শক্তির হ্যামারটি। বিজয় দিবসের আগেই পিলারের উপর দুইটি স্প্যান বসবে বলে আশাবাদী পদ্মা সেতু প্রকল্পের প্রকৌশলীরা।

পদ্মা সেতু হচ্ছে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরার মধ্যে। মূল সেতুর দৈর্ঘ্য (পানির অংশের) ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার। শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সকালে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী হ্যামার পদ্মা সেতু প্রকল্পে যুক্ত হয়েছে। হ্যামারের সঙ্গে আরো কিছু আনুষঙ্গিক যন্ত্রপাতি আসবে কিছু দিনের মধ্যেই। এরপর আগামী মাসের প্রথম দিকে এই হ্যামার দিয়ে পুরোদমে কাজ শুরু হবে। মূল সেতুর ৫৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

পদ্মা সেতু প্রকৌশলী সূত্র বলেন, জাজিরা প্রান্তে পদ্মা সেতুর ৩৯ ও ৪০ নং পিলারের তৃতীয় ধাপের ঢালাই ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই পদ্মা সেতুর ৩৯ ও ৪০ নং পিলারের ফাইনাল লেয়ার কনক্রিটিং শুরু হবে। বর্তমানে ৩৯ ও ৪০ নং পিলারের পিয়ার কলামের ফাইনাল লেয়ার রড বাধাইয়ের কাজ চলছে। এরপর চতুর্থ ধাপের কনক্রিট ঢালাই শুরু হবে। চলতি মাসের শেষের দিকেই আরেকটি স্প্যান বসানোর জন্য পিলারগুলো উপযোগী হবে।

আরও জানা যায়, পদ্মা সেতুর ৩৯ নং পিলারকে ঢালাই উপযোগী করতে পর্যায়ক্রমে কাজ চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পিলারের রডের খাচা বাধাই করে বসানো শেষ হয়েছে। আগামী ২-৩ দিনের মধ্যেই ৩৯ নং পিলারের সাটারিং শুরু হবে। সাটারিং শেষ হলেই কনক্রিট ঢালাই হবে এবং এরপর প্লিন্ট লেভেলে কনক্রিটিং ঢালাই শুরু হবে। এরপর স্প্যান বসানোর উপযুক্ত হবে পিলারটি।

এছাড়া ৪০ নং পিলারের ফাইনাল লেয়ারের রড বাধাইয়ের কাজ চলছে। ৪২ নং পিলারের পাইল ক্যাপ ঢালাই শেষ। খুব শিগগিরই পিয়ার কলামের রড বাধাইয়ের কাজ শুরু হবে। এরপরে পিয়ার কলামের প্রথম ধাপের ঢালাই শুরু হবে।

এদিকে, ৪১ নম্বর পিলারের ভিতরের কাজগুলো চলছে। পুরোপুরি পাইলটি উপযোগী হতে চলতি বছর লেগে যাবে। ২০১৮ সালের দিকে পাইল ক্যাপের কাজ শুরু হবে। মাওয়ার কুমারভোগ ওয়ার্কশপে ৭বি ও ৭সি নামের দুইটি স্প্যানকে পিলারের উপর স্থাপনের জন্য উপযোগী করে তোলা হচ্ছে। শেষ ধাপে রংয়ের কাজ শেষ হলে মাওয়া থেকে জাজিরা প্রান্তে নিয়ে আসা হবে। এসব কাজে বিশেষজ্ঞ প্যানেল নিখুঁতভাবে যাচাই বাছাই করে পরামর্শ এবং সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

Share

Comments

comments

Close