আজ: ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং, মঙ্গলবার, ২৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৫ রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী, বিকাল ৪:৫৮
সর্বশেষ সংবাদ
আন্তর্জাতিক দল থেকে বরখাস্ত হলেন প্রেসিডেন্ট মুগাবে

দল থেকে বরখাস্ত হলেন প্রেসিডেন্ট মুগাবে


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/১৯/২০১৭ , ৫:০৪ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আন্তর্জাতিক


Spread the love
Spread the love

জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাসীন জানু-পিএফ পার্টি দলের নেতার পদ থেকে প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবেকে বরখাস্ত করেছে। তার জায়গায় সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন এমনাঙ্গাগওয়াকে বসানো হয়েছে।

তবে এ ভোটকে এখনো আনুষ্ঠানিক রূপ দেয়া হয়নি। এই সিদ্ধান্ত হবার পর পার্টির ডেলিগেটরা উল্লাস করতে থাকেন। মুগাবে এখনো প্রেসিডেন্ট থাকলেও তার পদত্যাগের জন্য ক্রমাগত চাপ বাড়ছে।

দু সপ্তাহ আগে মুগাবে সাবেক ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমনাঙ্গাগওয়াকে বরখাস্ত করেছিলেন। এর পর থেকেই জিম্বাবুয়েতে নাটকীয় সব ঘটনা ঘটতে থাকে। ৯৩ বছর বয়স্ক মুগাবে যেন তার স্ত্রী গ্রেসকে ভাইস-প্রেসিডেন্ট করতে না পারেন, সেজন্য সামরিক বাহিনী হন্তক্ষেপ করে।

একইসঙ্গে হারারের মতো বড় শহরগুলোর রাস্তায় মুগাবের বিরুদ্ধে হাজার হাজার লোক বিক্ষোভ করছে। এর আগে জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাসীন জানু-পিএফ পার্টির প্রভাবশালী যুব লীগ প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবেকে পদ ছেড়ে দেবার ওপর চাপ দেয়।

যুব লীগ এ ছাড়াও মুগাবের স্ত্রী গ্রেসকে পার্টি থেকে বের করে দেবারও আহ্বান জানিয়েছে।

তারা মিসেস মুগাবের বিরুদ্ধে ‘উচ্ছৃঙ্খল এবং ধূর্ত’ আচরণের অভিযোগ আনে এবং উৎখাত হওয়া ভাইস-প্রেসিডেন্ট এমারসন এমনাঙ্গাগওয়াকে তার পদে পুনস্থাপন করারও আহ্বান জানায়।

বিবিসির একজন সংবাদদাতা বলছেন, এটা মুগাবের জন্য এক বিরাট অপমান এবং এরপরও তিনি পদ আঁকড়ে থাকলে আগামি সপ্তাহে তাকে অভিশংসনের মুখোমুখি হতে হতে পারে।

আজই কোন এক সময় সামরিক বাহিনীর জেনারেলরা মুগাবের সঙ্গে দেখা করবেন। গত বুধবার সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখল করার পর থেকেই তিনি তার নিজ বাসভবনে গৃহবন্দী অবস্থায় আছেন।

অন্যদিকে জিম্বাবুয়ের ক্ষমতাধর সাবেক মুক্তিযোদ্ধা আন্দোলনের নেতা ক্রিস মুৎসওয়াঙ্গুয়া মুগাবের প্রতি এক কড়া সতর্কবাণী উচ্চারণ করে বলেছেন, তিনি যদি আজই পদত্যাগ না করেন তাহলে গণ-সহিংসতা শুরু হবে।

তিনি বলেন, সামরিক বাহিনীকে আজকের মধ্যেই মুগাবের ব্যাপারটা মিটিয়ে ফেলতে হবে। তা নাহলে জনগণ রাস্তায় নেমে আসবে এবং ‘যা করার তা করবে’।

তবে মুৎসওয়াঙ্গুয়া বলেন, তিনি মুগাবের সম্মানজনক প্রস্থান বা এমনকি নির্বাসন চান। তিনি আরও বলেন, সেনাবাহিনী জনগণের সাথে আছে এবং তাদের কাজকর্মে কোন ত্রুটি হয়নি।

সূত্র : বিবিসি

Share

Comments

comments

Close