আজ: ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, রবিবার, ১৩ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১০ জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী, সকাল ১১:২৮
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রধান সংবাদ, রংপুর বিভাগ ছাত্র-শ্রমিক সংঘর্ষের পর দিনাজপুরে পরিবহন ধর্মঘট

ছাত্র-শ্রমিক সংঘর্ষের পর দিনাজপুরে পরিবহন ধর্মঘট


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/২৩/২০১৭ , ১২:২০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রধান সংবাদ,রংপুর বিভাগ


হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ছাত্রদের সঙ্গে সংঘর্ষের পর দিনাজপুর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বুধবার রাতে দিনাজপুর বাস টার্মিনাল এলাকায় শ্রমিকদের সঙ্গে সংঘর্ষের সময় ছাত্ররা দুটি বাসে আগুন দিয়েছে এমন অভিযোগ তুলে শ্রমিকরা অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেয়। ধর্মঘটের ফলে গতরাত থেকেই দিনাজপুর জেলার সঙ্গে সারাদেশের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় সরকারি কলেজ মোড়ে হাজী দানেশের শিক্ষার্থীবাহী একটি বাসের সঙ্গে বেসরকারি পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থী ও বাস শ্রমিকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর একপর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে পাঁচ শিক্ষার্থীসহ সাতজন আহত হয়। এর মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঘটনাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের মহাসড়কে জড়ো হয়ে দুটি বাসে আগুন দেয় বলে শ্রমিকরা অভিযোগ করেন। এতে বাস দুটি সম্পূর্ণরূপে পুড়ে যায়। শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের মহাসড়ক অবরোধ করায় দিনাজপুর-দশমাইল মহাসড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে বলে জানান দিনাজপুর পুলিশ সুপার হামিদুল আলম।

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষের পরই দিনাজপুর রুটে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেয় দিনাজপুর মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন।

দিনাজপুর মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী জানান, দুটি বাসে অগ্নিসংযোগ ও শ্রমিকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে দিনাজপুরের সব রুটে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট ডাকা হয়েছে।

দিনাজপুর বাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম সেলু জানায়, পুড়ে যাওয়া বাস দু’টির মালিক একজন হলেন ভবানী শংকর আগরওয়ালা এবং অপরজন তোফাজ্জল হোনেন।

দিনাজপুরের পুলিশ সুপার হামিদুল আলম জানান, সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Comments

comments

Close