আজ: ২৪ জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, বৃহস্পতিবার, ১১ মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী, রাত ৩:৫৪
সর্বশেষ সংবাদ
আইন ও বিচার গাজীপুরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি

গাজীপুরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/২৩/২০১৭ , ৩:০৪ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আইন ও বিচার


Spread the love
Spread the love

গাজীপুরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর আগুনে পুড়ানোর মামলায় স্বামী মো. আয়নাল হককে (৩৫) ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। রায়ে একই সঙ্গে মো. আয়নাল হককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এ কে এম এনামুল হক এ রায় দেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মো. আয়নাল হক (৩৫) গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বাইমাইল পশ্চিমপাড়া এলাকার মো. আব্দুল মান্নানের ছেলে।

এ ছাড়া অপর একটি ধারায় মো. আয়নালকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ডসহ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

গাজীপুর আদালতের পুলিশ পরিদর্শক মো. রবিউল ইসলাম জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এলাকার আনোয়ারা বেগমের প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হলে আয়নাল হকের সঙ্গে তার দ্বিতীয় বিয়ে হয়। এর পর তারা আনোয়ারার বাড়িতেই বসবাস করতে থাকেন। আনোয়ারার আগের সংসারের আনোয়ার হোসেন নামে একটি ছেলে রয়েছে এবং আয়নাল ও আনোয়ারা দম্পতির সংসারে ছয় বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

আগের ঘরের সন্তান এবং স্ত্রী আনোয়ারার জমি আয়নাল হক ও তার ছেলের নামে লিখে দেয়া নিয়ে বিরোধের জেরে ২০১৫ সালের ৯ জানুয়ারি রাতে দুধের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে আনোয়ারাকে খাইয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে আয়নাল। পরে পেট্রল ঢেলে তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আয়নাল হক ও নিহতের ভাই আমজাদ হোসেন আঞ্জুকে আটক করে। এ ব্যাপারে কোনাবাড়ি পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলাটি থানা পুলিশ, সিআইডি ও পিবিআইসহ ছয়টি সংস্থা তদন্ত করে।

সিআইডির তদন্তে নিহতের ভাই আমজাদ হোসেন মঞ্জুর সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়ে স্বামী আয়নাল হককে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। ২০১৭ সালের ১৫ অক্টোবর আয়নাল হকের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মো. হারিছ উদ্দিন আহম্মদ এবং আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট আব্দুস সোবহান, জেবুন্নেসা মিনা ও মোহাম্মদ আলী তারেক বুলবুল মামলাটি পরিচালনা করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে নয়জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ও শুনানি শেষে আদালত এ রায় দেন।

Share

Comments

comments

Close