আজ: ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, বৃহস্পতিবার, ১০ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৭ জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী, বিকাল ৪:২৬
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ, রংপুর বিভাগ ঠাকুরগাঁওয়ে ছেলের নির্যাতনে হাসপাতালে বাবা

ঠাকুরগাঁওয়ে ছেলের নির্যাতনে হাসপাতালে বাবা


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/২৭/২০১৭ , ৯:০৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ,রংপুর বিভাগ


হাসেম আলী, ঠাকুরগাঁও : বাবা ভরসা ও ছায়ার নাম। পরম নির্ভরতার নাম। সন্তানের জন্য কী-ই না করেন তিনি ! ভাষাভেদে শব্দ আর স্থানভেদে বদলায় উচ্চারণ, তবে বদলায় না রক্তের টান।
দেশ থেকে দেশে কিংবা সময় থেকে সময়ে একই মমতায় চিরন্তন পিতা-সন্তানের বন্ধন। সন্তান সামনে এলে সব ক্লান্তি যেন ভুলে যান বাবা। সন্তানের চাওয়াই যেন তাঁর চাওয়া হয়ে ওঠে। বাবাকেই আদর্শ মনে করে সন্তানরা।
বাবা সন্তানকে শেখান, কীভাবে মাথা উঁচু করে পৃথিবিতে টিকে থাকতে হয়। আর সেই সন্তান যদি বড় হয়ে বাবাকে নির্যাতন করে তার থেকে কষ্টদায়ক বিষয় আর কি হতে পারে ? সোমবার ঠাকুরগাঁও হরিপুর উপজেলার রনহাট্টা চৌরঙ্গী এলাকার আকবর আলী (৭৫) নামে এক বৃদ্ধ বাবা সন্তানের নির্যাতনের শিকার হয়ে হরিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।
নির্যাতিত বৃদ্ধ বাবা আলী আকবর জানান, জোড় পূর্বক আমার ছেলে সেলিম (২৮) বসত ভিটার জমি লেখে নিতে চায়। আমি দিতে রাজি না হলে সে নির্মমভাবে মেরে বাড়ি থেকে বের  করে দেয়। ক্ষত অবস্থায় গিয়ে থানায় অভিযোগ করি। পরে এলাকার রাশেদ নামে এক পল্লী চিকিৎসক আমাকে উদ্ধার করে হরিপুর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।
ছেলেকে কত কষ্ট করে মানুষের ক্ষেত খামারে কাজ করে বড় করেছি। কিন্তু আমার সেই ছেলেই আমাকে আজ নির্যাতন করলো। পুলিশকে অভিযোগ করার পরেও কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি পুলিশ। হরিপুর উপজেলার স্থানীয় সংবাদকমী কবিরুল ইসলাম কবির জানান, একজন বৃদ্ধ বাবাকে ছেলের হাতে নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে তা খুবই কষ্টদায়ক। বৃদ্ধ বাবা’র শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের দাগ রয়েছে।
বর্তমানে হাসপাতালের ভর্তি রয়েছেন তিনি। পুলিশকে অভিযোগ করার পরেও কোন ব্যবস্থা গ্রহন করছেন না, যা জনমনে  প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। হরিপুর ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনিরুজামান মনি জানান, ছেলের হাতে বৃদ্ধা বাবাকে নির্যাতনের ঘটনাটি অবগত হয়েছি। বিষয়টি স্থানীয় ভাবে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানান।
হরিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা: মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বৃদ্ধ বাবার শরীরে আঘাতের অনেক দাগ রয়েছে। তাকে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
হরিপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল কুদ্দুস জানান, অভিযোগ থানায় আসতে পারে। পুলিশ তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

Comments

comments

Close