আজ: ২৩ জুলাই, ২০১৮ ইং, সোমবার, ৮ শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১১ জিলক্বদ, ১৪৩৯ হিজরী, রাত ১১:২৭
সর্বশেষ সংবাদ
ফেসবুক থেকে রসিক ২০১৭ : কেন নৌকা মার্কায় ভোট দিবেন ??

রসিক ২০১৭ : কেন নৌকা মার্কায় ভোট দিবেন ??


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১২/২০/২০১৭ , ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: ফেসবুক থেকে



যেকোন অঞ্চলের উন্নয়ন নির্ভর করে সরকারের সদিচ্ছা ও আন্তরিকতার উপর।অর্থাৎ সরকার আন্তরিক না হলে উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হয়।স্বাধীনতার এই চার দশকে দেশের অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় রংপুরের তেমন কিছুই উন্নয়ন হয় নি।এর প্রধান কারন স্বাধীনতা পরবর্তী সরকার গুলো রংপুরের উন্নয়নে আন্তরিক ছিল না,এমনকি হুসেইন  মোঃ এরশাদ স্বৈরশাসনের  মাধ্যমে দীর্ঘ ৯ বছর ক্ষমতায় ছিল,যাঁকে রংপুরের মানুষ “হামার ছাওয়া” বলে ভালবেসেছিল, তারা স্বপ্ন দেখেছিল রংপুরে এবার কলকারখানা, ব্যবসা -বানিজ্য,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিশ্ববিদ্যালয় হবে,রংপুর বিভাগ সহ ব্যাপক উন্নয়ন হবে।। কিন্তু এরশাদ সাহেব তার দীর্ঘ ৯ বছরের শাসনকালে রংপুরের সহজ-সরল জনগনের ভালবাসার কোন প্রতিদান দেন নি,এরশাদ রংপুরের আশানুরূপ কোন উন্নয়ন করেন নি।অথচ এরশাদ ইচ্ছা করলেই তখন রংপুরে উন্নয়ন করে উন্নত করতে পারতেন।

রংপুরের জনগন বুঝতে পেরেছিল এরশাদ তাদের আবেগ ভালবাসাকে ব্যবহার করে, ক্ষমতায় থাকতে চেয়েছিল।এতে এই অঞ্চলের সহজ সরল জনগণ হতাশ হয়। এরপর রংপুরের উন্নয়নের জন্য প্রথম এগিয়ে আসেন আমাদের রংপুরের পুত্রবধূ, রংপুরের গর্ব, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা।

জননেত্রী শেখ হাসিনা ১ম বার ক্ষমতায় এসে রংপুরে শিক্ষাবোর্ড, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা সহ বিভিন্ন উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহন করেন।এমনকি ২০০১ সালে রংপুরের পুত্রবধূ জননেত্রী শেখ হাসিনা কারমাইকেল কলেজের কিছু জমির উপর একটি “বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ” ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

পরবর্তীতে বিএনপি -জামাত জোট সরকার এই বিশ্ববিদ্যালয় টি স্থান্তরিত করে দিনাজপুরে নিয়ে যায়,শিক্ষাবোর্ডটিও দিনাজপুরে নিয়ে যায়। বিএনপি কি পারতো না দিনাজপুরে অন্য আর একটি বিশ্ববিদ্যালয় করতে???? শিক্ষাবোর্ডটি রংপুরে করতে??? রংপুর শেখ হাসিনার শশুর বাড়ি তাই বিএনপি রংপুরের উন্নয়ন মেনে নিতে পারে নি/ পারে না।

২০০৯ সালে আবারও যখন রংপুরের বধু শেখ হাসিনা দেশের প্রধানমন্ত্রী হন তিনি রংপুরে এসে
ঘোষনা করেন-আমি আপনাদের পুত্রবধূ, রংপুর আমার তাই রংপুরের উন্নয়নের দায়িত্ব আমি নিজেই নিলাম”। 

কথা রেখেছেন শেখ হাসিনা।শেখ হাসিনা সরকার রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়,  রংপুর বিভাগ, রংপুর সিটি কর্পোরেশন

রাস্তা চারলেনে উত্তীর্ন করন, রংপুর মেট্রোপলিটন, রংপুর মেডিকেল হাসপাতাল উন্নত করন, রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেন, রংপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অাঞ্চলিক শাখা সহ ব্যাপক উন্নয়ন করেছে,আরো অনেক কাজ এখনও চলমান।
জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার রংপুরে আইটি পার্ক, আর্থ-সামাজিক, শিক্ষাক্ষেত্র,চিকিৎসাক্ষেত্র সহ শিল্পনগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চায়।
জননেত্রী শেখ হাসিনা রংপুরের যানজট নিরসনে শ্যামা সুন্দরি খালের উপর ফ্লাইওভার করে বিকল্প রাস্তা করার পরিকল্পনা করেছেন। এটি বাস্তবায়িত হলে রংপুরের যানজট নিরসন হবে,এবং রংপুরের সুন্দর্য্য বর্ধিত হবে।

তাই রংপুরের শিক্ষিত,সচেতন, শ্রমজীবী সহ সকল জনগনকে রংপুরের উন্নয়নের স্বার্থে সস্তা আবেগ পরিহার করে সচেতনতার প্রমাণ দিতে হবে।

সর্বোপরি রংপুরের উন্নয়নের জন্য, রংপুরকে আধুনিক মডেল সিটি গঠনের লক্ষ্যে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়া রংপুরের মানুষের নৈতিক  দায়িত্ব।

প্রচারে:-
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।

Comments

comments

Close