আজ: ২০ এপ্রিল, ২০১৮ ইং, শুক্রবার, ৭ বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৫ শাবান, ১৪৩৯ হিজরী, বিকাল ৩:০০
সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ, প্রধান সংবাদ, বাংলাদেশ রাজধানীতে গৃহকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার (ভিডিও সহ)

রাজধানীতে গৃহকর্মীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার (ভিডিও সহ)


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১২/২৪/২০১৭ , ১১:২৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: অপরাধ,প্রধান সংবাদ,বাংলাদেশ


রোহান আস্কার হাসিব, স্টাফ রিপোর্টারঃ     মোহাম্মদপুরের আদাবর থানাধীন শেকেরটেক ৪ নাম্বার রোড এর ২৩/২৫, সালমা গাডেন এর তৃতীয় তলার ৩(সি) ফ্লাট থেকে আলামীন (১১) নামের এক গৃহকর্মীর রক্তাক্ত  লাশ পাওয়া গেছে। আজ সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে। এ সময় উক্ত ফ্লাট এর ভাড়াটিয়া জুবায়ের (৩০) , তার স্ত্রী এবং শাশুড়ি কে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

আজ সকালে ভাড়াটিয়া জুবায়ের নিহত আলামীনের  চাচাকে ফোন করে জানায়, বাথরুমে পরে আলামিন এর মাথা ফেটে গেছে । সে অনেক অসুস্থ। এর পর তার  চাচা এসে কঙ্কালসার নিস্তেজ  অবস্থায় ঘরের এক কোণে  মেঝেতে চাদর দিয়ে ঢাকা অবস্থায় লাশ  পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে  খবর দেয়। পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে এবং ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেলে পাঠিয়ে দেয়।

প্রাথমিকভাবে ছেলেটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। পুলিশের  ভাষ্য মতে, অত্যন্ত নির্মমভাবে ছেলেটির শরিরের বিভিন্ন অংশ জখম করা হয়। ছেলেটির পিঠে, কোমরে , হাটুতে অসংখ্য  দাগের চিহ্ন, কিছু কিছু জায়গা আবার ছেঁকা দেওয়ার চিহ্নও রয়েছে, মাথার পিছন দিকটা ভারি কিছুর আঘাতে থেতলে দেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এটিকে হত্যাকাণ্ড হিসেবেই শনাক্ত করেছে পুলিশ।

ছেলেটির চাচা জানান , তার বাসা ময়মনসিংহ জেলার বাঘাডোবা গ্রামে। সেই তাকে ৭ মাস আগে এই বাসায় কাজ পাইয়ে দেন। তারপর থেকে সে এখানেই কাজ করতো। কিন্তু কি কারনে এতুটুকু ছেলেকে এভাবে মেরে ফেলা হলো ?

জুবায়ের ঢাকায় একটি বায়িং হাউজ এ কাজ করে বলে উক্ত বাসার বাসিন্দারা জানিয়েছেন। সে এই বাসায় এক বছর আগে উঠে। তারপর থেকে সে স্ত্রী, শাশুড়ি সহ এই বাসাতেই ভাড়া থাকতেন। পাশের ফ্লাট এর এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, ছেলেটি যে তাদের বাসায় কাজ করতো এটাও তারা জানতেন না। ঘটনার আগে কোন রকম আওয়াজও তারা পাননি। তবে তারা এই ঘটনার উপযুক্ত সাজা দাবি করেন।

Comments

comments

Close