আজ: [english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ
চটগ্রাম বিভাগ, রাজনীতি কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে বেগম জিয়াকে মুক্ত করা হবে: আবদুল্লাহ আল নোমান

কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে বেগম জিয়াকে মুক্ত করা হবে: আবদুল্লাহ আল নোমান


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: 06/09/2018 , 8:29 pm | বিভাগ: চটগ্রাম বিভাগ,রাজনীতি



মোহাম্মাদ আলাউদ্দিনঃ   শান্তিপূর্ণ আন্দোলন  বাদ দিয়ে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কঠোর আন্দোলনের বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমান।

শনিবার (০৯ জুন) উত্তর জেলা বিএনপির ইফতার মাহফিল ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া, উত্তর জেলা বিএনপির আহবায়ক লায়ন আসলাম চৌধুরীসহ বিএনপি নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

নগরের পাঁচলাইশের দি কিং অব চিটাগংয়ে আয়োজিত সমাবেশে আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের মা। তিনি দেশের স্বার্থে কোনদিন কারো সাথে আপোষ করেননি। বিএনপি চেয়ারপার্সনকে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দিয়ে কারগারে রাখা হয়েছে। বেগম জিয়াকে যেকোনমুল্যে মুক্ত করতে হবে। গণতন্ত্ররক্ষার সংগ্রাম আমাদেরকে চালিয়ে যেতে হবে। কারণ গণতন্ত্র ছাড়া একটি দেশ কাঙ্খিত গন্তব্যে পৌঁছাতে পারে না। বিএনপির পক্ষে জনগণ আছে। তাই সামনের আন্দোলনে জনগণ রাস্তায় নামবে। জনগণকে সাথে নিয়ে আন্দোলনের সূচনা করতে হবে। আন্দোলনের মূল শক্তি জনগণ।’

দেশে আওয়ামী লীগের জন্য এক রকম আইন বিএনপির জন্য অন্যরকম আইন উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ষাটের দশকে আমরা আইয়ূববিরোধী আন্দোলন করেছি। তখন তাদের শক্তি ছিলো বুলেট টিয়ার শেল। আর গণতন্ত্রকামী মানুষের শক্তি ছিলো জনগণ। জনগণ পাথর দিয়েও সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছে। তাই সময় এসেছে কঠোর আন্দোলনের। বাংলাদেশ জোয়ার ভাটার দেশ। এখণ হয়তো বিএনপির জন্য ভাটা চলছে। কিন্তু প্রকৃতির নিয়ম অনুযায়ী জোয়ার অবশ্যই আসবে। সেদিন আওয়ামী লীগের পতন কেউ টেকাতে পারবে না। ইনশাল্লাহ বেগম জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি সরকার গঠন করবে।’

তিনি অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়া, আসলাম চৌধুরীসহ সকল কারাবন্দি নেতাদের মুক্তি দাবি করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মো. নাছির উদ্দিন বলেন, ‘আইনী লড়াই করে আমরা বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে পারবো না। কারণ সরকারের ইশারায় আদালত চলছে। সরকার বেগম জিয়াকে হত্যার পরিকল্পনা করছে। যাতে জিয়া  পরিবারের কেউ নির্বাচনে যেতে না পারে। বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া এদেশে কোন নির্বাচন হবে না। আমরা লিফলেট বিতরণ করেছি, শান্তিপূর্ণ মিছিল করেছি। কিন্তু ওইসবে আর লাভ হবে না। কঠোর থেকে কঠোর হতে হবে।
উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি চাকসু ভিপি মো. নাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম।

উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু তাহেরের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপির শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এম নাজিম উদ্দিন, বিভাগীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশিদ, জালাল উদ্দিন মজুমদার, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ছিদ্দিক আহমেদ চৌধুরী, নগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি এম এ হালিম, অধ্যাপক ইউনুস চৌধুরী, ছালাউদ্দিন, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নুরুল আমিন, নুর মোহাম্মদ, আজম খান, সেকান্দর চৌধুরী, আবদুল আউয়াল, অধ্যাপক জসীম উদ্দিন, ডা.খুরশিদ জামিল চৌধুরী,নগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আহমেদুল আলম রাসেল, সেলিম চেয়ারম্যান, কামাল পাশা, সৈয়দ নাছির উদ্দিন, নুরুল আমিন চেয়ারম্যান, তফাজ্জল হোসেন,জাকির হোসেন, সোলায়মান মনজু, কুতুব উদ্দিন খান, হাসান মো. জসীম, জহুরুল আলম জহুর, সালাউদ্দিন চেয়ারম্যান, মাহবুব ছফা, ইউসুফ নিজামী, আহসানুল কবির রিপন, মোবারক হোসেন কাঞ্চন, দিদার মিয়াজী, ফকির আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন, আবুল বাশার কমিশনার, হাসান মুকুল, মো.ছিদ্দিক, আতিকুল ইসলাম লতিফি, মো.মোরসালীন, ফজল বারেক, ফরিদা বেগম, নার্গিস আক্তার, জান্নাতুল ফেরদৌস, আমিনুল ইসলাম তৌহিদ, সাইফুদ্দিন সালাম মিঠু, আওরঙ্গজেব মোস্তফা, কে আলম, আজিজ উল্লাহ, মামুনুর রশিদ মামুন, আনিস আক্তার টিটু প্রমুখ।

Comments

comments

Close