আজ: ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, শনিবার, ২৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী, সকাল ৬:২৫
সর্বশেষ সংবাদ

সিলেটে ডিজেল সঙ্কট!


পোস্ট করেছেন: desk news | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/১৭/২০১৯ , ৫:২৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: অর্থ ও শিল্প,জাতীয়,প্রধান সংবাদ,ব্যবসাবাণিজ্য



সিলেটে সাতদিন ধরে কোনো তেলবাহী ওয়াগন না আসায় ডিজেলের সংকট দেখা দিয়েছে। ডিপোতে যে পরিমাণ ডিজেল রয়েছে, তা দিয়ে আরো এক-দুদিনের যোগান দেয়া যাবে।  এরই মধ্যে ওয়াগন না এলে ডিজেলের সংকট প্রকট আকার ধারণ করবে।

তবে জ্বালানি তেল বিপনন ও সরবরাহকারী রাষ্ট্রায়ত্ব প্রতিষ্ঠান পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা অয়েল কোম্পানির পক্ষ থেকে সংকট নিরসনের প্রচেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আগে সপ্তাহে দু-তিনটি ওয়াগন সিলেটে এলেও সম্প্রতি তা একটিতে নেমে গেছে।  গত সপ্তাহের পর থেকে সিলেটে রেলওয়ের তেলবাহী কোনো ওয়াগনই আসেনি।  রেলেও ইঞ্জিন সংকটের কারণেই এমনটি হচ্ছে।

জানা যায়, ইঞ্জিন সংকটের কারণে একটি ওয়াগন আখাউড়া স্টেশনে আটকা পড়ে আছে।  ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার কসবায় দুর্ঘটনাকবলিত একটি ট্রেনে ওয়াগনের ইঞ্জিন যুক্ত করায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

সিলেটে ডিজেল সরবরাহ ওয়াগন নির্ভর হওয়ায় প্রায়ই এমন পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয় বলে জানান বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলারস ডিস্ট্রিবিউটরস এজেন্ট অ‌্যান্ড পেট্রোলিয়াম ওনার্স এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব জুবায়ের আহমদ চৌধুরী।

এ সংকট নিরসনে চাহিদা মাফিক একাধিক ডিজেলবাহী ওয়াগন সরবরাহ এবং বিকল্প পদ্ধতি অবলম্বনের দাবি উঠলেও তা বাস্তবায়িত হচ্ছে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

যমুনা অয়েল কোম্পানির সিলেট জেলা মার্কেটিং ম্যানেজার মো. আব্দুল বাকী জানান, রেলের ওয়াগন না আসার কারণে ডিপোতে কয়েকদিন ধরে ডিজেল সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।  ইঞ্জিন ও ওয়াগন বাড়লেই এ সংকট নিরসন হবে।

সিলেট রেলওয়ে স্টেশন স্টেশন ম্যানেজার আতাউর রহমান বলেন, ইঞ্জিন সংকটের কারণে ডিজেল আনা সম্ভব হচ্ছে না। ডিজেলবাহী ওয়াগন সিলেট এসে পৌঁছামাত্রই তা দ্রুত সরবরাহের ব্যবস্থা করা হবে।

Share

Comments

comments

Close