আজ: ৪ জুন, ২০২০ ইং, বৃহস্পতিবার, ২১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৩ শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী, দুপুর ১:০২
সর্বশেষ সংবাদ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি ঈদ শপিং না করে দরিদ্র ও কর্মহীনদের মাঝে অর্থ বন্টনের আহ্বান মায়া ফাউন্ডেশনের

ঈদ শপিং না করে দরিদ্র ও কর্মহীনদের মাঝে অর্থ বন্টনের আহ্বান মায়া ফাউন্ডেশনের


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ০৫/২৩/২০২০ , ১:৩৫ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: প্রেস বিজ্ঞপ্তি



এবারের ঈদে শপিং না করে গরীব অসহায় ও কর্মহীনদের মাঝে অর্থ বিতরণ করতে সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মায়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এফবিসিসিআই এর পরিচালক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক উপকমিটির সদস্য রাশেদুল হোসেন চৌধুরী রনি । গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে তিনি বলেন , বিত্তবানদের ঈদের শপিং না করে এর অর্থ অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন জনগনের মাঝে বন্টনের আহ্বান জানাচ্ছি।
উল্লেখ্য , ‘মানুষের কল্যাণে আমরা’ স্লোগানকে ধারণ করে সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রমের নামে প্রতিষ্ঠিত’ মায়া ফাউন্ডেশন’ করোনা দুর্যোগকালীন সময়ের প্রথম থেকেই খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে । ইতোমধ্যে ২ হাজার দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিয়েছে মায়া ফাউন্ডেশন ।
বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের সময় সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে মায়া ফাউন্ডেশনের ‘মানুষের কল্যাণে আমরা’ কর্মসূচির অধীনে তৃতীয় ধাপে এ কার্যক্রম শুরু করেছে সংগঠনটি ।
এবার রাজধানীর বনানী , গুলশান, উত্তরা ও মিরপুরের ৮০০ পরিবারে সহায়তার পাশাপাশি চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার কলাকান্দা ও ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নের ১হাজার অসহায়, দরিদ্র, কর্মহীন হতদরিদ্র পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাঠিয়েছে সংগঠনটি ।এর আগে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের ত্রাণ তহবিলে ২০০ জনের খাদ্য সামগ্রী পাঠিয়েছিল তারা ।
এসব ভোগ্যপণ্যের মধ্যে রয়েছে- চাল, ডাল, লবণ, তেল ও সাবান।
মায়া ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান জানান , সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে আমরা ‘মানুষের কল্যাণে আমরা’ কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। এর আওতায় দেশজুড়ে সাধারণ ছুটিতে কর্মহীন হয়ে পড়া প্রায় ২ হাজার অসহায় ও দরিদ্র পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছি। সংকটকালীন পরিস্থিতি মোকাবেলায় কেউ যদি মনে করেন তিনি পরবর্তী এক সপ্তাহে তার পরিবারসহ বেঁচে থাকার জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি কেনার জন্য যথেষ্ঠ অর্থ যোগান দিতে পারছেন না, তাহলে আমাদের ফাউন্ডেশনের ফেসবুক পেজে জানালেই আমরা সহায়তা করছি। তিনি আরো বলেন , ‘করোনার প্রাদুর্ভাবের সময় দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে আমরা দুটি বিষয়ে জোর দিয়েছি-একটি হলো নিম্নআয়ের মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ, অপরটি হলো স্বাস্থ্যখাতে সহায়তা প্রদান।’ তিনি জানান , মায়া ফাউন্ডেশন নিয়মিতভাবে খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে এবং আগামীতেও এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

জানা গেছে, খাদ্য সংকটে আছেন কিন্তু কারো কাছে সাহায্য চাইতে পারেন না এমন মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো মায়া ফাউন্ডেশনের ফেসবুক পেজে কিংবা কর্মীদের সাথে যোগাযোগ করলে অত্যন্ত গোপনীয়তার সাথে শিল্পপতি রাশেদুল হোসেন চৌধুরী রনি এর পক্ষে পরিচয় গোপন রেখে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও প্রতিদিন বিকাশের মাধ্যমে কর্মহীন ও অস্বচ্ছল পরিবারে সহায়তা করছে সংগঠনটি ।

Share Button

Comments

comments

Close